ক্যাডেট কলেজ ভর্তি পরীক্ষা, ২০১৭

ক্যাডেট কলেজ ভর্তি পরীক্ষা, ২০১৭
বিষয়ঃসময়ঃ

১। এক কথায় উওর লেখঃ
ক) ‘কাগজ বিলে পানকৌড়ি নাইছে সুখে’ কার লেখা কবিতার চরণ?
খ) শব্দের সাথে বিভক্তি যুক্ত হলে কী সৃষ্টি হয়?
গ) ‘পাপে বিরত হও’ কোন কারকের উদাহরণ?
ঘ) ‘গাছ ভেঙে পড়ার’ শব্দের অনুকরণে কোন দ্বিরুক্ত শব্দ ব্যবহৃত হয়?
ঙ) ‘আল্লাহ তোমার মঙ্গল করুন’ কোন ধরনের বাক্র?
চ) উদ্ধরণ চিহ্নের কোন বিরামচিহ্ন বসাতে হয়?
ছ) চন্দ্রবিন্দুর সাহায্যে শব্দের কী বোঝায়?
জ) যার ব্যঞ্জনধ্বনির সংখ্যা কয়টি?
ঝ) যার উপস্থিত বুদ্ধি আছে-এক কথায় কী বলে?
ঞ) ‘ধ্বানি থেকে কবিতা’ গ্রন্থটির রচয়িতা কে?
২। শূণ্যস্থান সত্য হলে ‘সত্য’ এবং ‘মিথ্যা’ লেখ।
ক) ‘এ’ ধ্বনির নিজস্ব উচ্চারণ সংবৃত ——।
খ) ‘পানকৌড়ির রক্ত’ একটি গল্পগ্রন্থ-
গ) উপভাষায় লিখিত ব্যাকরণ থাকে-
ঘ) শ্রোতা দ্বিতীয় পুরুষ —-।
ঙ) ‘বর’ শব্দটির স্ত্রীবাচক শব্দ বধূ —–।
৩। শূণ্যস্থান পূরণ করঃ
ক) ১/২ ভগ্নাংশটিকে কথায় —– বলে।
খ) ‘ষ্ণ’ যুক্তবর্ণটির বিশ্লেষিত রূপ——।
গ) প্রথম বন্ধনী সাহিত্যে ——- অর্থে ব্যবহৃত হয়।
ঘ) —– ভাষা গুরুগম্ভীর ও তৎসম শব্দবহুল।
ঙ) পাল ও যুথ শব্দ দুটি কেবল —– বহুবচনে ব্যবহৃত হয়।
চ) ‘জোছনা’ একটি ——- শব্দ।
ছ) ‘সৃষ্টি’র বিপরীত শব্দ—–।
জ) শ্রোদধানজলীএর সঠিক বানান।
ঝ) ‘হাড় হাভাতে’ বাগধারাটি অর্থ—।
ঞ) ‘বনস্পতি’ এর সন্ধিবিচ্ছেদ –
৪। সঠিক উওর সংবলিত রোমান সংখ্যাটি ০ দ্বারা বেষ্টন করে দাওঃ
১। ‘উকেটা’ বাগ্ধারাটি অর্থ কী?
ক) হোমরা চোমরা খ) সামন্য ব্যক্তি
গ) অসাধারণ ব্যক্তি ঘ) দুর্জন ব্যক্তি
২। ‘প্রদীপ নিভে গেল’ কোন কালের উদাহরণ?
ক) সাধারণ বর্তমান খ) পুরাঘটিত বর্তমান গ) সাধারণ অতীত ঘ) নিত্যবৃও অতীত
৩। ‘তাজা মাছ’ বাক্যটিতে তাজা কোন ধরনের বিশেষণ?
ক) অবস্থাবাচক খ) গুণবাচক গ) রূপবাচক ঘ) পরিমাণবাচক
৪। ‘ছেলেটাকে চোখে চোখে রাখো’ এখানে দ্বিরুক্তি কোন অর্থ নির্দেশ করছে?
ক) সতর্কতা খ) কালের বিস্তার গ) অনুভূতি ঘ) আগ্রহ বোঝাতে

৫। ব্যঞ্জনধ্বনির সাথে ব্যঞ্জনধ্বনি মিলে কোন শব্দটি তৈরি হয়েছে?
ক) একচ্ছত্র খ) পরিচ্ছেদ গ) দিগন্ত ঘ) উচ্চারণ
৫। আমাদের দেশে শিক্ষিত মানুষের অভাব না থাকলে ও ভালো মানুষের খুবই অভাব। একজন আর্দশ মানুষের বৈশিষ্ট্য কেমন হওয়া উচিত বলে তুমি মনে কর। অনধিক দশ বাক্যে লেখ।
৬। সারমর্ম লেখঃ
পরের কারণে মরণে ও সুখ,
‘সুখ’ ‘সুখ’ করি কেঁদ না আর,
যতই কাঁদিবে, যতই ভাবিবে
ততই বাড়িবে হৃদয় ভার।
আপনারে লয়ে বিব্রত রহিতে
আসে নাই কেহ অবনী ‘পরে’
সকলের তরে সকলে আমরা,
প্রত্যেকে মোরা পরের তরে।