বর্তমান যুগ তথ্য প্রযুক্তির যুগ। এই সময়ে আমরা অনেকেই প্রযুক্তি নির্ভর হয়ে পড়েছে।হাঁটাচলা কায়িক পরিশ্রম বা ব্যায়াম করা হয় না বললেই চলে। সামান্য দূরত্বে যাতায়াতের জন্য রিক্সা বা মোটরসাইকেল ব্যবহার করছি। ফলে নানা ধরনের শারীরিক সমস্যা দেখা দিচ্ছে।

ভারী ব্যায়াম করতে ব্যায়ামাগারে যাওয়ার সুযোগ না থাকলে মাত্র ৩০ মিনিট হাঁটাচলা করে শরীরকে সুস্থ রাখা সম্ভব। প্রতিদিন মাত্র ৩০ মিনিট হাঁটার কিছু গুণের কথা আজ আমরা আলোচনা করব যা বিভিন্ন বিখ্যাত অনলাইন ভিত্তিক ম্যাগাজিনগুলোতে উল্লেখ করা হয়েছে।

১. হাঁটা হৃৎপিণ্ডের স্বাস্থ্যকে ভালো রাখেঃ

প্রতিদিন নিয়মিত হাঁটা স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত উপকারী। প্রতিদিন মাত্র 30 মিনিট হাঁটা আপনার হৃদস্পন্দনকে ভালো রাখে। এটি শরীরে বাজে কোলেস্টেরল দূর করে এবং ভালো কোলেস্টেরল বাড়ায়। এটি রক্ত সঞ্চালন বাড়ায় এবং রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে। ফলে হৃদপিণ্ড ভালো থাকে।

২. বিপাক বাড়ায়

মাত্র 30 মিনিট হাঁটা হজমের জন্য সহায়ক। হাঁটা আমাদের হজমের প্রক্রিয়া কে শক্তিশালী করে এবং পাকিস্তানি থেকে নিঃসৃত রস নিঃসরণে সাহায্য করে। যার ফলে খাবার ভালোভাবে হজম হয়। এ ছাড়া হাঁটা ওজন কমাতেও সাহায্য করে।

৩. হাড় ক্ষয় প্রতিরোধ করে

প্রতিদিন হাঁটা হাড় ক্ষয় কমায় এবং হাড় শক্ত করে। নিয়মিত হাঁটা জয়েন্টের শুষ্কতা প্রতিরোধে সাহায্য করে। এতে শরীরের জয়েন্ট পেইন ও আরথ্রাইটিসও প্রতিরোধ হয়। 

৪. রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়

নিয়মিত হাঁটা শরীরের শ্বেত রক্তকণিকা তৈরিতে সাহায্য করে। ফলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। নিয়মিত হাঁটাচলা করে ঠান্ডা ফ্লু প্রতিরোধ করা যায়। তাই নিয়মিত হাঁটা চলার মাধ্যমে শরীরকে সুস্থ ও প্রাণবন্ত রাখা যায়।

৫. সুখী করে ও মানসিক প্রশান্তি সৃষ্টি করে

প্রতিদিন সকালে ও বিকালে 30 মিনিট হাটলে সাথে সাথে পছন্দের কোন গান শুনতে থাকলে মানসিক চাপ অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে আসে। ফলে এই পদ্ধতিতে আপনি সুখী হতে পারেন। এটি বিষন্নতা কমাতে সাহায্য করে।

Source: internet, P.C: pixabay