নবী ও রাসুল উভয়ই পৃথিবীতে এসেছেন মানবজাতির কল্যানের জন্য। আল্লাহ‌ তায়ালা মানবজাতির হিদায়তের জন্য বহু নবি-রাসুল দুনিয়াতে পাঠিয়েছেন। পবিত্র কুরআনে আল্লাহ্‌ বলেছেনঃ
“আর প্রত্যেক জাতির জন্য পথপ্রদর্শক রয়েছে”। (সূরা আর-রা’দ ১৩ , আয়াত ৭)
কুরআন মাজিদে ২৫ জন নবি-রাসুলের নাম রয়েছে কিন্তু প্রকৃতপক্ষে নবি-রাসুলের সংখ্যা লক্ষাধিক।

নবি ও রাসুল অর্থের দিক থেকে দুইটি শব্দের মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। যেমনঃ

রাসুল নবী
যাদের উপর মহান আল্লাহর পক্ষ থেকে আসমানী কিতাব অবতীর্ণ হয়েছে তাদেরকে রাসুল  বলা হয়। যাদের উপর আসমানী কিতাব অবতীর্ণ হয়নি তাদেরকে নবী  বলা হয়
রাসুলগনদের কাছে আসমানি কিতাব অবতীর্ণ হয়েছে। পূর্ববর্তী রাসুলের উপর যে আসমানী কিতাব অবতীর্ণ হয়েছে সেই কিতাবের অনুসরণ করে মানুষদের হেদায়াতের জন্য কাজ করেছেন।
সকল রাসুলগনই নবী ছিলেন। সকল নবীগণ রাসুল নয়।
আমাদের প্রিয় নবি  হযরত মুহাম্মদ (সা.) আল্লাহর প্রেরিত সর্বশ্রেষ্ঠ ও সর্বশেষ নবি ও রাসুল। হযরত ইউসুফ (আঃ) একজন নবী ছিলেন।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here