পিতা মাতা গুরুজনে দেবতুল্য জানি,
যতনে মানিয়া চল তাহাদের বাণী।

মূলভাব: বাবা-মা ও গুরুজন আমাদের জীবন গঠন ও পরিচালনার জন্য যেসব উপদেশ দিয়ে থাকেন সেগুলো আমাদের মেনে চলা উচিত।


সম্প্রসারিত ভাব: বাবা মা আমাদের জীবন দান করেন এবং অনেক কষ্ট করে লালন পালন করেন। বাবা মার সাথে অন্যান্য গুরুজনরা ও আমাদের সুন্দর জীবন বিকাশের সাহায্য করেন। তারাও অনেক কষ্ট স্বীকার করেন এবং আমাদের বড় করে তোলেন। তারা আমাদের তুলনায় বয়সে, জ্ঞানে বুদ্ধিতে অনেক বড়। তারা জানেন কি করলে আমাদের ভালো হবে, কি করলে আমাদের জীবন আরো সুন্দর হবে। আমরা নবীন, অনভিজ্ঞ। তাই আমরা এই জটিল পৃথিবী সম্পর্কে অনেক কিছুই জানি না। যেহেতু পিতা মাতা ও গুরুজন আমাদের স্নেহ করেন এবং ভালোবাসেন তাই তারা সর্বদাই আমাদের মঙ্গল কামনা করেন। সুতরাং আমাদের উচিত তাদের উপদেশ অক্ষরে অক্ষরে মেনে চলা। আর তা না করতে পারলে আমাদের জীবনে সফলতা আসবে না। প্রতিটি মুহূর্তে মুহূর্তে আমরা হোঁচট খাব। ইতিহাসে অনেক ব্যক্তি রয়েছে যারা তাদের পিতা-মাতার কথা উপদেশ মেনে চলেছেন। তাদের মধ্যে ইশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর এবং বায়েজিদ বোস্তামীর কথা সবাই জানেন। তারা তাদের গুরুজনদের আদেশ-উপদেশ মেনে চলেছেন বলেই আজ তারা সকলের শ্রদ্ধার পাত্রে পরিণত হয়েছেন। তাই পিতামাতা গুরুজন দেবতুল্য ও আরাধনার যোগ্য। দেশ জাতি তথা সামগ্রিক বিশ্বের কল্যাণের জন্য আমাদের উচিত পিতা-মাতা ও গুরুজনের আদেশ উপদেশ মেনে চলা।
মন্তব্য: পরিশেষে বলা যায়, যে পিতা-মাতা ও গুরুজনের কথা উপদেশ মেনে চললে নিজের জীবন, দেশ ও জাতির উন্নতির শিখরে পৌঁছানো সম্ভব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here