শিক্ষা সফরের প্রেরণের আবেদন জানিয়ে তোমার স্কুলের প্রধান শিক্ষকের নিকট একখানা দরখাস্ত

বরাবর,
প্রধান শিক্ষক
কালাচাঁদপুর উচ্চ বিদ্যালয়
গুলশান, ঢাকা ১২১২

 

বিষয়: শিক্ষা সফরে প্রেরণের জন্য আবেদন

জনাব,
বিনীত নিবেদন এই যে আমরা আপনার স্কুলের নবম দশম শ্রেণীর নিয়মিত ছাত্রছাত্রীবৃন্দ। দীর্ঘ বেশ কয়েক মাস যাবত একটানা পড়াশোনার মধ্যে অতিবাহিত করে আমরা মানসিকভাবে অত্যন্ত ক্লান্ত হয়ে পড়েছি। এমন পরিস্থিতিতে একটি শিক্ষা সফর আমাদের সবাইকে চাঙ্গা করে তুলতে পারে। তাই আগামী মাসের প্রথম সপ্তাহে আমরা শিক্ষা সফরে যাওয়ার ইচ্ছা পোষণ করছি। আপনি জানেন বর্তমান যুগে শিক্ষা সফরের গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম। একটি শিক্ষা সফরের মাধ্যমে আমরা একটি নতুন স্থান বা একটি ঐতিহাসিক স্থান পরিদর্শনের পাশাপাশি বাস্তব জ্ঞান অর্জন করতে পারব। সেইসাথে শিক্ষামূলক অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের জ্ঞান লাভ করার সুযোগ পাব। আমাদের পাঠ্যবইয়ের জ্ঞান অর্জনের পাশাপাশি বাস্তবিক জীবনে অনেক উপকারে আসবে।

আমরা শিক্ষা সফরে মহাস্থানগড় যাওয়ার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করছি। মহাস্থানগড়  বাংলাদেশের একটি অন্যতম প্রাচীন পুরাকীর্তি। প্রসিদ্ধ এই নগরী ইতিহাসে পুণ্ড্রবর্ধন বা পুণ্ড্রনগর নামেও পরিচিত ছিল। এক সময় মহাস্থানগড় বাংলার রাজধানী ছিল। যিশু খ্রিষ্টের জন্মেরও আগে অর্থাৎ প্রায় আড়াই হাজার বছর পূর্বে এখানে সভ্য জনপদ গড়ে উঠেছিল প্রত্নতাত্ত্বিক ভাবেই তার প্রমাণ মিলেছে। ২০১৬ সালে এটি সার্কের সাংস্কৃতিক রাজধানী হিসেবে ঘোষণা হয়। শিক্ষা সফরে আমরা দুই দিন কাটাবো বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছি। বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় বিষয়ের দুই জন শিক্ষক আমাদের সাথে শিক্ষা সফরে যাওয়ার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। এই দুই দিনে ছাত্র-ছাত্রীদের মাথাপিছু 5000 টাকা করে খরচ হবে। সম্পূর্ণ টাকা আমাদের পক্ষে একা বহন করা সম্ভব নয়। আপনার অনুমতি পেলে আমরা এই টাকার অর্ধেক বহন করতে ইচ্ছা পোষণ করছি। বাকি টাকার ব্যাপারে আপনার সাহায্য ও সহানুভূতি কামনা করছি।

অতএব বিনীত প্রার্থনা এইযে, শিক্ষা সফরের গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা অনুধাবন করে আমাদেরকে শিক্ষা সফরে যাওয়ার অনুমতি ও প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ করে বাধিত করবেন।

 

বিনীত,

নবম-দশম শ্রেণীর ছাত্র-ছাত্রীর পক্ষে
আরিয়ান আহমেদ