সর্দি-কাশিতে শিশুর নাক বন্ধ হয়ে গেলে

সর্দি-কাশিতে শিশুদের নাক বন্ধ হয়ে যাওয়া একটি সাধারণ দৃশ্য। এই সমস্যাটি শিশুর অস্বস্তির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। বিশেষত ছোট শিশুদের বেলায়।

প্রশ্ন : শিশুর সর্দি-কাশিতে কী ধরনের চিকিৎসা দেওয়া হয়?

উত্তর: শিশুদের সর্দি কাশিতে সবচেয়ে কমন বিষয় তা হলো নাক দিয়ে পানি পড়া, অল্প অল্প জ্বর হওয়া। আপনি যদি দেখেন শিশুর সর্দি কাশি রয়েছে, নাক দিয়ে পানি ঝরছে কিন্তু অতটা বেশী নয়, তবে খুব বেশি চিন্তা করার প্রয়োজন নেই। বাসাতেই কিছু ঘরোয়া ব্যবস্থার মাধ্যমে বাচ্চার অসস্তিকে কমাতে পারেন। যেমন: দেখবেন বাচ্চার নাক হয়তো অপরিষ্কার হয়ে বন্ধ হয়ে আছে। এই ক্ষেত্রে আপনি বাসাতেই ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারেন। বাজারে কিছু স্যালাইন ওয়াটার পাওয়া যায় যেমন নরসোল, নসমিস্ট। এগুলো ব্যবহার করে বাচ্চার নাক পরিষ্কার করে দিন। সেলাইন ওয়াটার ব্যবহারের ক্ষেত্রে শিশুর দুই নাকে একই সাথে ব্যবহার করবেন না। দুই নাকে একসাথে ব্যবহার না করে এক নাকে দিয়ে নাক পরিষ্কার করে 5,7 মিনিট পরে আবার দ্বিতীয় নাক পরিষ্কার করবেন। এভাবে নাক পরিষ্কার করলে বাচ্চা আরামবোধ করবে এবং নিঃশ্বাস নিতে পারবে।

এছাড়া বাচ্চাকে কুসুম গরম পানি দিয়ে গোসল করাতে হবে। কুসুম গরম পানির সাথে লেবুর রস মিশিয়ে তা পান করতে দিতে হবে। শিশু বয়স যদি ছয় মাসের বেশি হয় তবে তুলসী পাতার রস মধুর সাথে মিশিয়ে খাওয়ানো যেতে পারে এতে শিশুর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে এবং ঠান্ডাজনিত সমস্যা থেকে মুক্তি পাবে।