বাংলা সাহিত্য ও সাহিত্যিকদের পরিচয়

আদি ও মধ্যযুগের বাংলা সাহিত্য

আমাদের এই পর্যায়ে আমরা আদিও মধ্যযুগের বাংলা সাহিত্যের উপরে কিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন ও উত্তর নিয়ে আলোকপাত করছি।

  1. বাংলা লিপির উৎস কি? বাংলা ভাষা কোন ভাষা গোষ্ঠীর বংশধর? বাংলা লিপির উৎস ব্রাহ্মী লিপি। বাংলা ভাষা হিন্দু আর্য গোষ্ঠীর বংশধর।
  2. বাংলা ভাষার প্রাচীনতম নিদর্শন কোনটি? এগুলো কোন সময়ে রচিত হয়েছিল? বাংলা ভাষার প্রাচীনতম নিদর্শন চর্যাপদ। চর্যাপদ গুলো সপ্তম শতাব্দী থেকে দ্বাদশ শতাব্দীর মধ্যবর্তী সময়ে রচিত হয়েছিল।
  3. চর্যাপদে চর্যাপদে মোট কয়টি প্রবাদবাক্য পাওয়া যায়? চর্যাপদে অন্ততপক্ষে 6 টি প্রবাদ বাক্য পাওয়া যায়।
  4. চর্যাপদের ভাষাকে হরপ্রসাদ শাস্ত্রী কি বলেছিলেন? উত্তর: চর্যার ভাষা কে হরপ্রসাদ শাস্ত্রী সন্দ্য ভাষা বলে আখ্যায়িত করেন।
  5. চর্যাপদে প্রাপ্ত প্রবাদ বাক্যের মধ্যে যেকোনো দুইটি প্রবাদবাক্য উল্লেখ করো
    • দুহিল দুধ নাহি বেন্টে সামায়।
    • আপনা মাসে হরিণা বৈরী।
  6. চর্যাপদের পুঁথি কে কোথা থেকে এবং কখন আবিষ্কার করেন? উত্তর: চর্যাপদের পথিকে মহামহোপাধ্যায় হরপ্রসাদ শাস্ত্রী নেপালের রাজদরবার এর গ্রন্থাগার থেকে ১৯০৭ সালে আবিষ্কার করেন।
  7. চর্যাপদ চর্যাপদ এর রচিয়তা কে বা কারা? উত্তর: কাহ্নপা, লুইপা, কুক্কুরীপা, ভুসুকু, সবুরপাদ সহ মোট 24 জন ছিলেন।
  8. এদের মধ্যে সর্বাধিক চর্চা কে রচনা করেন? উত্তর: এদের মধ্যে কাহ্নপা সর্বাধিক চর্চা রচনা করেন। তিনি মোট 13 টি রচনা করেন।
  9. চর্যাপদের ভাষাকে কে বাংলা প্রতিপন্ন করেছেন? উত্তর অধ্যাপক সুনীতিকুমার চট্টোপাধ্যায়।
  10. চর্যাপদ কোন ছন্দে রচিত? উত্তর চর্যাপদ মাত্রাবৃত্ত ছন্দে রচিত।
  11. বাংলা ভাষা কোথা থেকে এসেছে? উত্তরঃ মাগধী প্রাকৃত হতে।
  12. ভাষার ভাষার দিক থেকে বাংলার দ্বিতীয় গ্রন্থ কোনটি এবং তার কাল কত? উত্তর: শ্রীকৃষ্ণ কীর্তন। এর রচনাকাল চতুর্দশ শতক।
  13. বৈষ্ণব পদাবলীর আদি রচয়িতা কে? উত্তরঃ বৈষ্ণব পদাবলীর আদি রচয়িতা বড়ু চন্ডীদাস।
  14. শ্রীকৃষ্ণকীর্তন এর রচিয়তা কে? উত্তরঃ বড়ু চন্ডীদাস।
  15. শ্রীকৃষ্ণকীর্তন কত সালে উদ্ধার করা হয়? উঃ শ্রীকৃষ্ণকীর্তন ১৯০৯ সালের উদ্ধার করা হয়।